Monday , June 17 2024
received 458724331842268

একজন সফল চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু র ছোট্ট গল্প।

চেয়ারম্যান হওয়া একটা স্বপ্ন। এখানে থেকে সরাসরি মানুষে মানুষে কথাবলা ও সেবা করা যায়।দায়িত্ব পাওয়ার পর কাজ করতে গেলেই আসতে থাকবে নানা রকমের প্রতিবন্ধকতা। যে ব্যক্তি এসব প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে এগিয়ে যাবেন তিনিই হবেন সফল। আজ এমনই একজন সমাজ সেবকের কথা জানাচ্ছি,যিনি সফল ও জনবান্ধব ব্যক্তি (চেয়ারম্যান) হিসেবে প্রতিষ্ঠিত,নাম আরিফ মাসুদ বাবু। উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের একজন সফল চেয়ারম্যান তিনি। আর এই সফলতাই কাল হয়ে দাড়িয়েছে,তার বিরুদ্ধে অপ্রচারে নেমেছে একটি স্বার্থান্নেসী মহল। রাজনৈতিক ভাবে মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয়ে,সামাজিক ভাবে তাকে হেয় প্রতিপন্নর মিশনে নেমেছে স্থানীয় কিছু কুচক্রী। অনুসন্ধানে জানা যায়,উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের একজন সফল চেয়ারম্যান তিনি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অন্যতম ঘনিষ্ঠ সহচর মরহুম এ্যাডভোকেট সাজেদ আলী মিয়ার ছেলে আরিফ মাসুদ বাবু। সোনারগাঁও আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এবং মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান।সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন। তার কাছে মানুষের প্রত্যাশা অনেক। তাই তিনি তার পরিশ্রম,সাহস, ইচ্ছাশক্তি,একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য,স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের,সর্বোপরি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন তা বাস্তবায়নের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সফল ও জনবান্ধন এই চেয়ারম্যান ইতিমধ্যেই ভোটার দ্বারা দুই দুইবার বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন।

সেবামূলক কাজের অভিজ্ঞতাও পারিবারিক ভাবেই রয়েছে। এ সকল মানুষের পেছনে আছে কিছু গল্প, তা অনেকটা রূপকথার মতো। দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। রাস্তাঘাটের উন্নয়ন,শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান,সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় এরই মধ্যে সুনাম কুড়িয়েছেন। নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন সাথে এলাকার জনগনের। তার সাথে দলের ভাবমূর্তির উন্নয়ন হয়েছে। অসংখ্য মসজিদ,মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠণের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক। ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তার মাঝে কোনো অহংকার নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ সকলের কাছে প্রিয়। কাজ করছেন নৌকার জন্য। সর্বোপরি কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য।

নির্বাচনকালীন সময়ে সাধারণ জনগনকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে একজন সফল ও জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে সবশ্রেণির মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন। ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কিছু দিনের মাথায় তার প্রিয় ইউনিয়নকে উন্নয়নের মাষ্টার প্লানের আওতায় এনে ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কর্মসূচি হাতে নিয়েছিলেন। দৃশ্যপট পরিবর্তন করেছেন ইউনিয়ন পরিষদের। উপজেলার সবচেয়ে দৃষ্টিনন্দন মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ। মেধা,মনন,কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা দিয়ে তিনি ইউনিয়নকে গড়েছেন পরিশীলিতভাবে এক উজ্জ্বল অধ্যায়ে।
তিনি এলাকার দরিদ্র জনগোষ্টির উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। তিনি এ পর্যন্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন গরীব দুঃখী মানুষের মাঝে বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা সঠিকভাবে বিতরণের মাধ্যমে অনুকরনীয় নজির স্থাপন এবং গ্রাম্য সালিসের মাধ্যমে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে যাচ্ছেন। ক্লিন ইমেজ একজন সাদামনের মানুষ। বিশাল ব্যক্তিত্ব। এলাকার সাধারণ মানুষের মতে,আমরা আওয়ামী লীগ,বিএনপি বুঝিনা চেয়ারম্যান হিসেবে আরিফ মাসুদ বাবুই আমাদের যোগ্য চেয়ারম্যান,একজন ভালো মানুষ। তিনি একজন কর্মঠ ব্যক্তি। তিনি চেয়ারম্যান পদে থাকলে আমাদের তথা এলাকার উপকার হবে। আমাদের দুঃখ-দুর্দশায় তাকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়। ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ,পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান নেতা হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন।

জানতে চাইলে আরিফ মাসুদ বাবু বলেন,জনসেবা আমাদের পারিবারিক ভাবেই,নেতৃত্বও পরিবার থেকেই গড়ে উঠা।
বৈশ্বিক মহামারীর ব্যাপক সংক্রমনের সময়
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশিত গ্রাম গঞ্জের পাড়া মহাল্লায় সরকার কর্তৃক সাহায্য প্রণোদনা জনগণের মাঝে পৌঁছে দিয়েছি। এছাড়াও তিনি বলেন,আমি ব্যক্তিগত তহবিল থেকে আমার সাধ্যমত আমার ইউনিয়ন বাসিকে যথেষ্ট পরিমাণ সাহায্য সহযোগিতা করেছি এবং বর্তমানেও করছি,যা চলমান থাকবে। তিনি আরো বলেন কাজ করতে গেলে সমালোচনা হবেই,মিথ্যে প্রপাগাণ্ডা হবে, কিন্তু থেমে থাকলে চলবে না।
সামনে নির্বাচনে ইউনিয়নবাসী যদি চায় আবারো চেয়ারম্যান হয়ে আসবো। আমি আমার নির্বাচনী এলাকা মোগরাপাড়া সর্বস্তরের জনগনের পাশে ছিলাম আছি থাকবো ইনশাআল্লাহ।

Check Also

image 478277 1634812558

পদ্মা ও মেঘনা নামে দুটি বিভাগ হবে: প্রধানমন্ত্রী

দেশে পদ্মা ও মেঘনা নামে দুটি বিভাগ হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, …